1. admin@aparadhatallasi.com : admin :
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০২:২৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁও জেলা পুলিশের অভিযানে ১৭০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারসহ গ্রেফতার -৫ রাসেলসস ভাইপার দেখলে যোগাযোগ করবেন যেসব নাম্বারে.. লোহাগাড়ায় যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ফুলবাড়ীতে অসুস্থ ছাগলের মাংস বিক্রয়ের অভিযোগ ভ্রাম্যমান আদালতে ২০ হাজার টাকা জরিমানা মধুপুরে প্রাইভেটকার ও মাহিন্দ্রার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২ আহত ৮ রংপুরের বাজারে উঠতে শুরু করেছে সুস্বাদু হাঁড়িভাঙা আম কাপাসিয়া প্রাণিসম্পদ দপ্তরের সহযোগিতায় পাগলা মহিষ উদ্ধার ঢাকাগা‌মী টিকেটে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়,যাএীদের ক্ষোভ গোপালগঞ্জে জাল সনদে দীর্ঘদিন লিটন কুমার করেন প্রকল্প ম্যানেজারের চাকরি র‌্যাব-১৫,এর অভিযানে রামু’র পশ্চিম উমখালী থেকে পলাতক ২জন আসামী গ্রেফতার

অভয়নগরে বে-সরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার গুলোতে অনিয়মে ভরপুর-দৈনিক অপরাধ তল্লাশি 

  • আপডেট সময় : সোমবার, ১ মে, ২০২৩
  • ১০৭ বার পঠিত

মোঃ কামাল হোসেন, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

যশোরের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া হাসপাতাল রোডে গড়ে ওঠা একাধিক বে-সরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার গুলোতে অনিয়মে ভরপুর, প্রতৃকারের উপায় নেই। তথ্য অনুসন্ধানে জানা গেছে, ওই সব বে-সরকারি স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান গুলোতে গলাকাটা বানিজ্যেসহ বিভিন্ন অনিয়ম হরহামেশাই চলমান থাকলেও অদৃশ্য কোন কারণে কতৃপক্ষের পক্ষ থেকে কোন আইনগত পদক্ষেপ চোখে পড়েনা। ফলে দীর্ঘদিন ওই সব প্রতিষ্ঠান সাধারণ রোগীদের হয়রানিসহ নিয়মবহির্ভূত কাজে জড়িয়ে পড়েছে।

 

সূত্রে জানা গেছে, রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় ও স্থানীয় প্রভাবশালী সাংবাদিকদের ম্যানেজ করেই চালিয়ে যাচ্ছে তাদের এই কর্মকান্ড। সূত্রে আরো জানা গেছে, বিভিন্ন সময় ওই সব বে-সরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন গণমাধ্যমে নিউজ প্রকাশিত হলেও কতৃপক্ষের পক্ষ থেকে কোন আইনগত পদক্ষেপ না নেওয়াতে সাধারণ মানুষের মাঝে রয়েছে কৌতুহল। অনুসন্ধানে দেখা যায় অনভিজ্ঞ নার্স সেবিকাদিয়ে রোগীদের চিকিৎসা ও সেবা করা হয়। অনুমোদনের থেকেও তিনগুন বেশি রোগীর বেড স্থাপন করা। অননুমোদিত কেবিন স্থাপন করা। শিশু বিশেষজ্ঞ উপজেলায় নেই, কিন্তু নার্স ও ভূয়া অনভিজ্ঞ নামধারী লোকদিয়ে শিশুদের চিকিৎসা বা সেবা করা হয়। সূত্রে জানা গেছে, টেষ্ট বানিজ্যের নামে সাধারণ রোগীদের সাথে করা হয়, অভিনব প্রতারণা। উপজেলাসহ বিভিন্ন গ্রাম থেকে ছুটে আসা অসহায় রোগীদের অসহায়ত্বের সুযোগ নিতে ওই সব বে-সরকারি স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান গুলোর জুড়ি নেই। তথ্য অনুসন্ধানে জানা গেছে, কোন সাংবাদিক ওই সব বে-সরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার গুলোর বিরুদ্ধে অনিয়মের কিছু প্রকাশ করলেই তার উপর নেমে আসে বিভিন্ন জীবন নাশের হুমকি। ফলে ভয়ে অনেক সাংবাদিক কিছু প্রকাশ করেনা, অন্য দিকে কিছু অসাধু নামধারী সাংবাদিক পরিচয়দানকারীরা ওই সব স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান থেকে মাসিক মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে থাকেন, না হলে ক্লিনিক কতৃপক্ষকে অনিয়মের নিউজ প্রকাশের ভয় দেখানো হয়।

 

ফলে বে-সরকারি ওই হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার গুলোর মালিক পক্ষ ও পড়ে চরম বিপাকে। অনুসন্ধানে জানা গেছে, বিভিন্ন রাজনৈতিক সাংবাদিকসহ প্রভাবশালীদের ইন্দনে দীর্ঘদিন ওই সব স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান গুলো চালিয়ে যাচ্ছে গলাকাটা বানিজ্য ও সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকে বলেন, ভুল চিকিৎসার কারণে ক্লিনিক গুলোতে হরহামেশা রোগীর মৃত্যু হলেও বার বার মোটা অংকের টাকায় রফাদফায় সব অপকর্ম ধামাচাপা দেওয়া হয়। এবিষয়ে কখনো তদন্ত করে আইনগত পদক্ষেপ চোখে পড়েনা। তথ্য অনুসন্ধানে জানা গেছে, ওই সব বে-সরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে রয়েছে দালাল নিয়োজিত সে সব দালাল চক্রের কাছে রোগীর আত্মীয় স্বজনরা বিভিন্ন রকম হয়রানির শিকার হয়।

 

ক্লিনিক গুলোর মালিক পক্ষের ইন্ধনে রোগীর স্বজনদের সাথে দূর্ব্যবহার চরম আকার ধারণ করলেও ক্লিনিক মালিক বা কতৃপক্ষের কোন মাথা ব্যাথা নেই। ক্লিনিকে রোগীদের সুরক্ষা না থাকলেও অর্থ বানিজ্যের লোভে পড়ে, সব অনিয়ম নিয়মে পরিনত হয়ে দেধারচ্ছে করছে গলাকাটা বানিজ্য। অন্যদিকে পরিস্কার অপরিচ্ছন্ন ধারের কাছে নেই ওই সব ক্লিনিক গুলো, একাধিক সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে ওই সব বে-সরকারি স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান গুলো সরকারি নিয়মনীতিকে থোড়াই কেয়ার করেনা। নিজেদের খেয়াল খুশিমতো রোগীদের কাছ থেকে অর্থ হাতানোই যেনো ওইসব ক্লিনিক কতৃপক্ষের নেশাতে পরিনত হয়েছে। কে বাঁচল আর কে মারা গেলো এবিষয়ে যেনো কারো মাথা ব্যাথা নেই। তথ্য সূত্রে আরো জানা গেছ, ওইসব স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান গুলোর কর্মচারীদের বেতন খুবই কম, যে কারনে সাধারণ রোগীদের সেবা থেকে বঞ্চিত হতে হয়।

 

এবিষয়ে যশোর সিভিস সার্জন ডা. বিপ্লব কান্তি বিশ্বাস জানান, ওই সব বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে দ্রুত সময়ের মধ্যে অভিযান পরিচালনা করা হবে, কোন অনিয়মকে ছাড় দেওয়া হবেনা, নিয়মিত আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক অপরাধ তল্লাশি

Theme Customized By Shakil IT Park