1. admin@aparadhatallasi.com : admin :
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৭:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাপাসিয়া বাসীকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানালেন ইউএনও একেএম লুৎফর রহমান কাপাসিয়া বাসীকে পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানালেন ওসি আবুবকর মিয়া দোয়ারাবাজারে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানদের শপথ গ্রহণ সম্পন্ন হু হু করে বাড়ছে তিস্তার পানি নদীপাড়ে আতঙ্ক বিরাজ ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন যুবলীগ নেতা বাদল আহমেদ জুয়েল সুবর্ণচরে আলহাজ্ব মাওলানা ছানা উল্যাহ জামে মসজিদ উদ্বোধন ফরিদপুর জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি কাজী আব্দুস সোবহান দরিদ্র অসহায়দের মাঝে ঈদ উপহার হিসেবে আর্থিক সাহয্য করেন ঈদের শুভেচ্ছায় জননেতা আহসান খান আছু ঈদের শুভেচ্ছায় জননেতা আহসান খান আছু ঈদে ঘরমুখো মানুষের হয়রানী ও টিকেট কালোবাজারী বন্ধে পুলিশ ও র‌্যাবের সাব-কন্ট্রোল রুম চালু

চট্টগ্রামে ছাএীকে অপহরণ ও ধর্ষণের আসামী কে আটক করেছে র‌্যাব-৭-দৈনিক অপরাধ তল্লাশি 

  • আপডেট সময় : বুধবার, ৭ জুন, ২০২৩
  • ৪৩ বার পঠিত

মোঃ কামরুল হাসান, চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের বাকলিয়ায় ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী মোঃ কামরুল মোস্তফা’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম।

 

ভুক্তভোগী ভিকটিম চট্টগ্রাম মহানগরীর বাকলিয়া এলাকায় একটি স্কুলে ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে লেখাপড়া করত। ভিকটিম যখন প্রথম শ্রেণীর ছাত্রী ছিল তখন আসামী মোঃ কামরুল মোস্তাফাও তাদের স্কুলে এইচএসসিতে পড়ত। তখন ভিকটিমের সাথে কামরুলের পরিচয় হয় এবং ভিকটিম আসামীকে ভাইয়া বলে ডাকত। আসামী কামরুল শিশু ভিকটিমের সাথে বন্ধুত¦সুলভ সম্পর্ক করে ভিকটিমকে প্রায় সময় তাদের বাসায় নিয়ে যেত। গত ০৩ আগষ্ট ২০১৪ইং তারিখে বিকাল আনুমানিক ১৬০০ ঘটিকায় আসামী কামরুল শিশু ভিকটিকে ফুসলিয়ে অপহরণ করে কক্সবাজার নিয়ে যায়। সেখানে ভিকটিমকে একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে গিয়ে ০৫ আগষ্ট ২০১৪ ইং তারিখ পর্যন্ত ভিকটিমকে ভয় ভীতি প্রদর্শন করে তার ইচ্ছের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক উপর্যূপরি ধর্ষণ করে। পরদিন ০৬ আগষ্ট ২০১৪ আসামী কামরুল ভিকটিমকে নিয়ে কক্সবাজার হতে চট্টগ্রাম আসার পথে কর্ণফুলি এলাকা হতে ভিকটিমের বাবা এবং মামা ভিকটিমকে উদ্ধার করেন এবং আসামীকে থানায় সোর্পদ করেন।

এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে চট্টগ্রাম মহানগরীর বাকলিয়া থানায় আসামী কামরুলের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম মহানগরীর বাকলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং-০৫(৮)১৪, জিআর নং-২৮৫/১৪, নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল মামলা নং-৭২৬/১৪, ধারা-নারী শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) এর ৭/৯(১)। মামলা চলাকালীন সময়ে আসামী কামরুল জামিনে বের হয়ে এলাকা ছেড়ে আত্মগোপনে চলে যায়। পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালতে আসামী কামরুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমানিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড এবং ৫০,০০০ টাকা অর্থ দন্ড প্রদান করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম বর্ণিত অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী কামরুলকে গ্রেফতারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা নজরদারী অব্যাহত রাখে। নজরদারীর এক পর্যায়ে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সূত্রে জানতে পারে যে, বর্ণিত ধর্ষক আইন শৃখলা বাহিনীর নিকট হতে গ্রেফতার এড়াতে চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়েজিদ বোস্তামী থানাধীন শেরশাহ এলাকায় আত্মগোপনে আছে।

 

উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামের একটি আভিযানিক দল গত ০৬ জুন ২০২৩ ইং তারিখে বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আসামী মোঃ কামরুল মোস্তফা(৩০), পিতা-মৃত খাইরুল এনাম, সাং-পেচারপাড়া, থানা-কুতুবদিয়া, জেলা-কক্সবাজারকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে সে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামি মর্মে স্বীকার করে।

গ্রেফতারকৃত আসামী সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক অপরাধ তল্লাশি

Theme Customized By Shakil IT Park