1. admin@aparadhatallasi.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৩:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কাপাসিয়ায় পাট চাষীদের প্রশিক্ষণ অভয়নগরে পরিচ্ছন্নতাকর্মী পদে ভূয়া সনদে চাকরি করার অভিযোগ রংপুরে দুলা ভাইয়ের হাতে শ্যালক খুন নীলফামারীতে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ভালুকায় ভরাডোবা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তেলিহাটি ইউনিয়নে রাস্তার শুভ উদ্বোধন করেন গনশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুমানা আলী টুসি এমপি কাপাসিয়া রামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনায় কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত কাপাসিয়ায় মাসিক যৌথ সভা ও ই-প্রশিক্ষণ কোর্স অনুষ্ঠিত স্কুল ঝড়েপড়া শিক্ষার্থীদের আটকাতে হবে “প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক রুমানা আলী টুসি “ কাপাসিয়ার মেয়ে সাইয়ারা কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে দ্বিতীয়

বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে মাঠে রাজনৈতিক সমাবেশ করলেন ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ, জনমনে চরম ক্ষোভ

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৩৮ বার পঠিত

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কোনো প্রকার অনুমতি ছাড়াই এবং ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে সরকারি দলের এক নেতা বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে বিদ্যালয়েরই মাঠে করেছেন রাজনৈতিক জনসভা। এর ফলে নির্ধারীত সময়ের আগেই বিদ্যালয় ছুটি দেওয়া হয়েছে। এ ক্ষমতাধর নেতা হলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের অধিভূক্ত বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটির সদস্য এবং যশোর জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ইঞ্জিনিয়ার আরশাদ পারভেজ। এ জনসভাকে কেন্দ্র করে বাঘারপাড়ায় চলছে মিশ্র আলোচনা। গত মঙ্গলবার উপজেলা সদরের বাঘারপাড়া পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও দোহাকুলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ রাজনৈতিক জনসভার আয়োজন করা হয়। এ উপলক্ষে বিদ্যালয় দুটির মাঠে মঞ্চ তৈরি ছাড়াও সকাল ১১টা থেকে মাইক বাজতে থাকে। সরেজমিনে দেখা যায়, শোডাউনে যাওয়ার জন্য মাঠে মোটরসাইকেল জমায়েত হচ্ছেন আরশাদ পারভেজের অনুসারীরা।

 

বাইক, মাইক্রো ও প্রাইভেটের হর্নের শব্দে দিশেহারা প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীরা। যা থেকে পরিত্রান পেতে নির্দিষ্ট সময়ের আগে ছুটি হয়েছে বিদ্যালয়। শ্রেণী কক্ষের পাশেই চলছে পাঁচ হাজার লোকের গনভোজ উপলক্ষে রান্নার প্রস্তুতি। মাইকের আওয়াজে ব্যহত হচ্ছে শ্রেণী কক্ষের পাঠদান। শিক্ষার্থীরা কানে আঙ্গুল দিয়ে বসে আছে বেঞ্চে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষক বলেন, টিফিনের সময় স্কুল মাঠে শত শত লোক উপস্থিত হয়। এসময় মেয়েদের নিরাপত্তার কথা ভেবে বিদ্যালয় টিফিন টাইমে ছুটি দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, একজন শিক্ষিত রাজনৈতিক নেতা যদি শিক্ষার কদর বা পিপারেশ না বোঝেন তবে এ জাতীর পতন অনিবার্য।

 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বাঘারপাড়া পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জুলহাস উদ্দীন বলেন, খাবার রাখার জন্য আমার কাছে একটা রুম চাওয়া হয়েছে। কিন্তু জনসভা বা মহড়ার কথা আমাকে জানানো হয়নি। অনুমতি নেওয়া প্রসঙ্গে বাঘারপাড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জিল্লুর রশিদ বলেন, আমার থেকে কোন অনুমতি নেয়নি। এ ব্যাপারে সাংবাদিককে প্রধান শিক্ষকের সাথে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করেন এ শিক্ষা অফিসার। বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে রাজনৈতিক সমাবেশ চলার বিধি নিষেধ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহি অফিসার হোসনে আরা তান্নির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ট্রেনিংয়ে আছেন বলে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক অপরাধ তল্লাশি

Theme Customized By Shakil IT Park