1. admin@aparadhatallasi.com : admin :
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৮:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
#একটি হারানো বিজ্ঞপ্তি# সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড় দেবীগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন মদন মোহন রায় ঠাকুরগাঁওয়ে ১৯ বোতল ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার-১ কবিতাঃ শিরোনাম: নিশি শ্রীপুরে গুলিতে ফরিদ নামে একজনের মৃত্যুর ঘটনায় ১টি বিদেশি পিস্তল সহ অভিযুক্ত ইমরান গ্রেফতার ডাসারে তিনজনকে রড-হাঁতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম! থানায় মামলা ঘরে তালা দিয়ে বৃদ্ধ বাবাকে বের করে দিল ছেলে মিরসরাইয়ের ১২নং খৈয়াছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এর কারমুক্তিতে এলাকাবাসীর আনন্দ মিছিল শ্রীপুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ইতিহাস সৃষ্টি করে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন নাছির মোড়ল নির্বাচনী জনসভা জনসমুদ্রে রূপান্তর, জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী, চশমা মার্কার প্রার্থী মাকসুদুর রহমান হাওলাদার

মাদারীপুরে জয়নাল মোল্লার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে সোনা চোরাচালান, হুন্ডি ও মাদক ব্যবসার অভিযোগ

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৫২ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টারঃ

মাদারীপুর জেলার শিবচর থানাধীন ভদ্রাসন ইউনিয়নের মোল্লা কান্দির বাসিন্দা জয়নাল মোল্লা ও তার ছেলে অপু, ভাতিজা জহিরুল ভাগ্নে তরকারি আবুল ও বাবুলের বিরুদ্ধে সোনা চোরাচালান, হুন্ডি ও মাদক ব্যবসার অভিযোগ পাওয়া গেছে ।
জানা যায় বিগত ১৭/১৮ বছর পূর্বে প্রথমে জয়নাল মোল্লা সৌদি আরবে গিয়ে ছেলে অপু ভাতিজা জহিরুল এবং একই এলাকার আবু আলেম মোল্লার ছেলে ইমরান ও খালেক মাতবরের ছেলে রাসেল সহ আরো অনেক লোককে টাকার বিনিময়ে সৌদি আরবে নেন । এদের মধ্যে অনেককে দিয়ে হুন্ডি ও সোনা চোরাচালান করানোর অভিযোগ রয়েছে এই পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে । মাঝেমধ্যে এলাকায় অন্যের সোনার বিস্কুট ও হুন্ডির টাকা আত্মসাতের অভিযোগে এই পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে বিচার মীমাংসার ঘটনা ঘটেছে । কিন্তু গত ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ইং তারিখে জয়নাল মোল্লার ভাতিজা জহিরুল মোল্লা পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে পরামর্শ ও সহযোগিতায় সৌদি আরব প্রবাসী মুন্সীগঞ্জের কামালসহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও সিলেটের অনেক সৌদি প্রবাসীর স্বজনদের কাছে হুন্ডির মাধ্যমে পৌঁছে দেওয়ার শর্তে প্রায় ১০(দশ) কোটি নগদ টাকা ও বিপুল পরিমাণ স্বর্ণের বার ও স্বর্ণালংকার নিয়ে বাংলাদেশে এসে আত্মসাৎ করে পলাতক হয়ে যায় ।

 

বিষয়টি সৌদি প্রবাসীরা জানতে পেরে এই পরিবারের নিকটাত্মীয় ইমরান ও রাসেলকে ধরে নিয়ে অমানবিক নির্যাতন করে . প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ আদায় করে ছেড়ে দিলে ইমরান ও রাসেল অসুস্থ অবস্থায় ভয়ে দেশে চলে আসে । ইমরান ও রাসেল দেশে ফিরে এসে জয়নাল মোল্লার পরিবারের বিরুদ্ধে সামাজিক বিচার ও থানায় অভিযোগ করলে এলাকায় চাঞ্চলের সৃষ্টি হয় । বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায় জহিরুল পরিবারের সদস্যদের নিকট টাকা পয়সা রেখে দুবাই পালিয়ে যায় । নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, টাকার অভাবে এই পরিবারের কোন সদস্যই উচ্চশিক্ষার সুযোগ না পেয়ে সৌদি আরবে গমন করে । পরবর্তীতে সোনা চোরাচালান, হুন্ডি ও মাদক ব্যবসার মাধ্যমে রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ বনে যায় বলে জানা গেছে । জয়নাল মোল্লার ছেলে অপু এই অবৈধ টাকার জোরে এলাকায় গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয় । অবৈধ টাকায় এই পরিবারের সদস্যরা ভাঙ্গা টিনের ঘর থেকে এখন একাধিক আলিশান দালানের মালিক হয়েছে জানা যায় ।

 

এ চক্রটির বিরুদ্ধে এলাকায় দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসা করার অভিযোগ রয়েছে ।এদের মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে জয়নাল মোল্লার দুই ভাগ্নে তরকারি আবুল ও বাবুল মাদবর । এলাকাবাসীর সাথে আলোচনা করে জানা যায় পূর্ব থেকেই এই পরিবারটি এলাকায় ঈর্ষা পরায়ণ ও কলহ প্রিয় । এদের রোসানলে কেউ একবার পড়লে তার আর রক্ষা নেই । এই চক্রটির বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে বলেও জানা গেছে ‌‌। এই চক্রটির নিকট এলাকার নিরীহ জনগণ এক প্রকার জিম্মি হয়ে আছেন, ভয়ে এদের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে চায় না । একই এলাকার মমরাজ মাদবর নামক এক কন্যা দায়গ্রস্থ অসহায় পিতা এই পরিবারের সদস্যদের নিকট জিজ্ঞেস না করে তার মেয়ে বিয়ে দিলে মমতাজ মাদবরকে জয়নাল মোল্লার ঘরে ধরে এনে হুমকি ও মারধর করে মেয়েকে ডিভোর্স করিয়ে আত্মীয়তা ভেঙ্গে দিতে বাধ্য করার অভিযোগ রয়েছে । ভদ্রাসন বাজারে সংখ্যালঘু হিন্দু ব্যবসায়ী জঙ্গল শাহের দোকানের কিছু অংশ দখল করার অভিযোগ রয়েছে এই চক্রটির বিরুদ্ধে ।

 

জয়নাল মোল্লার ভাগ্নে তরকারি আবুল ভদ্রাসন বাজারে সরকারি জমি দখল করে মার্কেট নির্মাণ করেছেন বলেও জানা গেছে । মার্কেটের পিছনে আরেক সংখ্যালঘু পরিবার স্বপন পালের জমি দখল করে রাস্তা তৈরি করার অভিযোগও রয়েছে । তরকারি আবুল খালেক তালুকদারের মেয়ে শাহনাজ পারভীনের ২৫/৩০ বছরের কাঁঠাল ও অন্যান্য গাছ কেটে জবরদখল করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করলে শাহানাজ পারভিন এলাকায় বিচার না পেয়ে একাধিক মামলা করেছেন । এছাড়াও এই চক্রটির বিরুদ্ধে মসজিদের জমি, আজিদ মজিদ শেখদের জমি এবং বাজারের কাছে মোতালেব বেপারীদের জমি জবরদখল দখল করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে ।

 

এই চক্রটি সুযোগ পেলে আপনজনদের সম্পত্তিও আত্মসাৎ করতে পিছু পা হয় না । জয়নাল মোল্লার আপন চাচাতো ভাই মীর কাসেম মোল্লার ঘর ভেঙ্গে জোরপূর্ব বিল্ডিং নির্মাণ করতে চাইলে মীর কাসেম মোল্লা মামলা করে নিষেধাজ্ঞের আদেশ এনেছেন বলে জানা গেছে । জয়নাল মোল্লার আরেক চাচাতো ভাই দানেস মোল্লার মৃত্যুর পর তার সম্পত্তি বিভিন্নভাবে জবর দখল করার পায়তারা করে যাচ্ছে বলে দানেস মোল্লার পরিবার সূত্রে জানা গেছে । এলাকাবাসী এই পরিবারের সদস্যদের অত্যাচার থেকে মুক্তি পেতে অনতিবিলম্বে প্রশাসনের উপর মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক অপরাধ তল্লাশি

Theme Customized By Shakil IT Park