1. admin@aparadhatallasi.com : admin :
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ১২:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁও জেলা পুলিশের অভিযানে ১৭০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারসহ গ্রেফতার -৫ রাসেলসস ভাইপার দেখলে যোগাযোগ করবেন যেসব নাম্বারে.. লোহাগাড়ায় যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ফুলবাড়ীতে অসুস্থ ছাগলের মাংস বিক্রয়ের অভিযোগ ভ্রাম্যমান আদালতে ২০ হাজার টাকা জরিমানা মধুপুরে প্রাইভেটকার ও মাহিন্দ্রার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২ আহত ৮ রংপুরের বাজারে উঠতে শুরু করেছে সুস্বাদু হাঁড়িভাঙা আম কাপাসিয়া প্রাণিসম্পদ দপ্তরের সহযোগিতায় পাগলা মহিষ উদ্ধার ঢাকাগা‌মী টিকেটে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়,যাএীদের ক্ষোভ গোপালগঞ্জে জাল সনদে দীর্ঘদিন লিটন কুমার করেন প্রকল্প ম্যানেজারের চাকরি র‌্যাব-১৫,এর অভিযানে রামু’র পশ্চিম উমখালী থেকে পলাতক ২জন আসামী গ্রেফতার

শ্রীপুরে সেফটিক ট্যাংকে দুই শ্রমিকের মৃত্যু 

  • আপডেট সময় : বুধবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৬০ বার পঠিত
সাইফুল ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

গাজীপুর জেলার শ্রীপুরে নির্মাণধীন বাড়ির সেফটিক ট্যাংকি পরিস্কার করতে নেমে দুই নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতদের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে বিষাক্ত গ্যাস কারণে শ্বাস বন্ধ হয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

 বুধবার (২০ডিসেম্বর) বিকেল চারটার দিকে পৌরসভার মন্ডল বাড়ির চৌকিদার ভিটার জনৈক আবু সাঈদের বাড়িতে ওই ঘটনা ঘটে। রাত সাড়ে ছয়টার দিকে দুই শ্রমিকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।নিহত শ্রমিকেরা হলেন নেত্রকোনা জেলার সদর থানার দিঘজান গ্রামের সোনা মিয়ার ছেলে মো. মোখলেছ (৪৫) ও ঠাকুরগাঁও জেলার রুহিয়া থানার জয়নাল আবেদিনের ছেলে মো. মাসুম (২৪)। স্থানীয়রা জানান, শ্রীপুর পৌরসভার মন্ডল বাড়ির চৌকিদার ভিটায় জনৈক আবু সাঈদের নির্মাণাধীন বহুতল ভবনের কাজ চলছে।

দুই মাস আগে ওই বাড়িতে একটি সেফটিক ট্যাংকি নির্মাণ করা হয়। নির্মাণ করা সেফটিক ট্যাংকির ভেতরে বাঁশ ও কাঠ খুলতে বুধবার সকালে মোখলেছ ও মাসুম ভেতরে নামে। দুপুর গড়িয়ে বিকেল হয়ে গেলেও তাদের কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে পাশের ওপর একটি বাড়িতে কাজ করা তাদের সহকর্মী মোখলেছের মোবাইল ফোনে কল দিয়ে তা বন্ধ পায়। পরে সহকর্মী রুহুল আমিন বিকেলে ঘটনাস্থলে এসে ট্যাংকির পাশে এসে মোখলেছ ও মাসুমকে মৃত অবস্থায় সেফটিক ট্যাংকির পানির মধ্যে ভাসতে দেখে পুলিশ খবর দেয়। খবর পেয়ে শ্রীপুর থানা-পুলিশ ও শ্রীপুর ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

নিহত শ্রমিক মোকলেছুর রহমানের চাচাতো ভাই রুহুল আমিন বলেন, ‘আমি পাশের একটি সাইডে কাজ করছিলাম। তাদের ফোন নম্বর বন্ধ পেয়ে ঘটনাস্থলে এসেও তাদের কোনো খোঁজ খবর পায়নি। এরপর সেপটিক ট্যাংকিতে উঁকি মেরে দেখি ওরা দুজন পানিতে ভাসছে। এরপর সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয়দের জানায়। পরবর্তীতে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়।

বাড়ির মালিকের বোনজামাই বাচ্চু মিয়া দৈনিক অপরাধ তল্লাশিকে বলেন, গত তিন মাস যাবৎ বাড়ির কাজ বন্ধ রয়েছে। আজ ঠিকাদার যে বাড়িতে কাজ করার জন্য লোক পাঠিয়েছে আমরা জানতাম না। মৃত্যুর বিষয়টি আমাকে জানানোর পরপরই আমি ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। শ্রমিকেরা সেপটিক ট্যাংকি বাঁশ কাঠ খুলতে আসছিলেন পরে জানতে পারলাম। বাড়ির নির্মাণকাজের দায়িত্বে থাকা ঠিকাদার জয়নাল আবেদীনের ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে একাধিকবার ফোন করলেও তার ফোন নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

শ্রীপুর পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আহমদুল কবির বলেন, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমি পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে বিষয়টি জানিয়েছি।শ্রীপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মোঃমাহবুবুর রহমান বলেন, ‘আমরা পুলিশের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থলে এসে ৩০ মিনিটের চেষ্টায় দুই শ্রমিকের মৃতদেহ উদ্ধার করি।ধারণা করা হচ্ছে বিষাক্ত গ্যাসের কারণে দমবন্ধ হয়ে তাদের দুজনকে মৃত্যু হয়েছে।তবে কি ধরনের গ্যাস এটা তাৎক্ষণিকভাবে বলা যাচ্ছে না।মৃতদেহ দুটি পানিতে ভাসমান ছিল।

শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শাখাওয়াত হোসেন বলেন, সেফটিক ট্যাংকির ভেতর থেকে শ্রমিকদের মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক অপরাধ তল্লাশি

Theme Customized By Shakil IT Park