1. admin@aparadhatallasi.com : admin :
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সাতকানিয়ায় ১৭ টাকা পাওনাকে কেন্দ্র করে ছু রিকাঘা তে যুবককে হ ত্যা রংপুর বিভাগের ১৯ উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত রানীশংকৈলে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহের সমাপনি অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত ৫৩বছর বছর ধরে ঘাস বেচেই সংসার চলে ভূমিহীন অমলের ফুলবাড়ীতে ই‌রি-বোরো ধান সংগ্রহে উন্মুক্ত লটারি পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে ফার্মেসীতে ফেনসিডিল সেবনের সময় পুলিশের হাতে আটক দুই ফুলবাড়ীতে রেমালের প্রভাব: পাকা ধান নিয়ে দুশ্চিন্তায় কৃষক তীব্র গরমে স্বস্তি দিচ্ছে তালের শাঁস ফুলবাড়ীতে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উদ্বোধন মাদারীপুরে সমাজসেবার দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

দেবীগঞ্জে প্রতিবন্ধী রাকিবুল এর জমি দখলের চেষ্টায় ভূমিদস্যুতায় জড়িত একটি চক্র

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ৭৩ বার পঠিত

মো:লালন সরকার,দেবীগঞ্জ,(পঞ্চগড়)প্রতিনিধিঃ

উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার ২ নং শালডাঙ্গা ইউনিয়নের ছত্র-শিকার পুর এলাকার মৃত রফিজ উদ্দিনের ছেলে বাক প্রতিবন্ধী রাকিবুল ইসলামের নিজ ভোগ-দখলীয় জমি দখল করার চেষ্টা, পরিবারের উপর আক্রমণ, বৃদ্ধা মা কে হত্যা করার চেষ্টা, ও যুবতী স্ত্রীর শ্লীলতাহানি করার মতো নেক্কার জনক হামলা চালিয়েছে একই এলাকার প্রভাবশালী আব্দুর রশীদ ও হেলালের নেতৃত্বে একটি ভূমিদস্যু চক্র।

ঘটনার অনুসন্ধানে জানা যায়, পিতার মৃত্যুর পর সংসারের একমাত্র কর্ণধার প্রতিবন্ধী রাকিবুল এর ৭ বিঘা জমি বে-দখল করে প্রতিবেশী প্রভাবশালী ব্যাক্তিরা, এমতাবস্থায় উক্ত ৭ বিঘা জমি অসহায় রাকিবুল কে দখল করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সু-সম্পর্ক গড়ে তোলেন প্রতিবেশী আব্দুর রশীদ ও হেলাল। এমতাবস্থায় রাকিবুল কে বিভিন্ন কাজে/সাংসারিক প্রয়োজনে ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা হাওলাদ দেন আব্দুর রশীদ। টাকা দেওয়ার সময় স্টাম্পে উল্লেখ করে টাকা দেন, উক্ত স্টাম্পে আগামী ২৮শে ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ইং তারিখে টাকা ফেরত প্রদানের কথা উল্লেখ থাকে। কিন্তু এরই মাঝে প্রভাবশালী আব্দুর রশীদ ও হেলাল সুকৌশলে টাকার পরিবর্তে জমি দাবী করে, এমতাবস্থায় প্রতিবন্ধী রাকিবুল প্রতিপক্ষ আব্দুর রশীদ ও হেলাল গং দের বলেন স্টাম্পে উল্লেখিত তারিখে আপনাদের টাকা ফেরত দেওয়া হবে। কিন্তু প্রতিপক্ষ টাকা নয় জমি নিতে চায়। তপশীলঃ মৌজা-ছত্র শিকারপুর, জে,এল, নং- ২৩, দাগ নং- ১২৬৮, মোট ৪২ শতক জমিতে ঘটনাটি ঘটে।

এজাহার সূত্রে পাওয়া যায়, নিজ ভোগ দখলীয় জমিতে চলতি মৌসুমে ইরি রোপণ করার উদ্দেশ্যে প্রতিবন্ধী রাকিবুল ইসলাম এর মা ও তার স্ত্রী হাজিরা লোকজন সহ জমিতে কাজ চলমান অবস্থায় প্রতিপক্ষ আব্দুর রশীদ ও হেলাল গং এসে রাকিবুল ইসলাম এর মা মোছাঃ রোকেয়া বেগম কে চর-থাপ্পর কিল ঘুষি মারার এক পর্যায়ে ভুক্তভোগী রাকিবুল ইসলাম এর মা কে উক্ত জমিতে কাঁদা মাটির নিচে মাথা ঠেসে ধরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার চেষ্টা করে, এমন অবস্থায় রাকিবুলের স্ত্রী মোছাঃ জেসমিন আক্তার জুঁই এসে তার শাশুড়ী কে প্রাণে রক্ষা করে রাকিবুল তার মা কে চিকিৎসার জন্য দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। ঐ দিকে রাকিবুলের স্রী কে শ্লীলতাহানি করা হয় মর্মে দেবীগঞ্জ থানায়, চার জনের নাম উল্লেখ করে একটি এজাহার দায়ের করেন রাকিবুল ইসলাম।

উক্ত ঘটনার অভিযুক্তরা হলেন মৃত ময়দান আলীর পুত্র মোঃ আব্দুর রশিদ (৪৫), মৃত ধুলু মাসুদের পুত্র মোঃ হেলাল উদ্দীন (৪০),মৃত ময়দান আলীর আরো দুই সন্তান মোঃ আবু তালেব (৫০) ও মোঃ গোলাপ চাঁন (৪৪) সর্বসাং- ছত্র শিকারপুর।

সরেজমিন অনুসন্ধানে জানা যায়, এলাকাবাসী জানায় উল্লেখিত আব্দুর রশীদ ও হেলাল গং প্রভাবশালী হওয়ায় বার বার হয়রানির শিকার হচ্ছে অসহায় প্রতিবন্ধী রাকিবুল ইসলামের পরিবার। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জনৈক শিক্ষক বলেন ‘আব্দুর রশীদ ও হেলাল গং ভূমিদস্যু হিসেবে এলাকায় পরিচিত। ইতি পূর্বে তারা এভাবে আরো কয়েকটি অসহায় পরিবারের জমি দখল করে নিয়েছে। অভিযোগ আছে ভূমিদস্যুতায় জড়িত এই চক্রটি সবাইকে ম্যনেজ করেই জোড়পূর্বক অন্যের জমি দখল করে। উক্ত ভূমিদস্যু দের কবল থেকে মুক্তি পাওয়া অসম্ভব’।

উক্ত ঘটনার বিষয়ে প্রতিবন্ধী রাকিবুল ইসলাম বলেন, “আমি অসহায় মানুষ, আইনের আশ্রয় নিয়েছি, আমার মা উক্ত ঘটনার পরদিন থেকে দেবীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আমি আমার মায়ের পাশে সর্বক্ষণ থাকি। এমতাবস্থায় মামলার এজাহারে উল্লেখিত আসামিগণ পূনরায় সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারী) দুপুর ১টায় আমার জমিতে হাল চাষ দেন। ‘আমি এই বিষয়টি দেবীগঞ্জ থানায় জানানোর পরেও মঙ্গলবার ভোর রাতে আমি জানতে পারি আমার জমিতে ইরি ধানের চারা রোপন করছেন ৩০/৪০ জন মানুষ নিয়ে আসামিগণ’। আমি অসহায় হয়ে সাংবাদিক লালন সরকারের সহযোগিতায় জরুরি সেবা ৯৯৯ লাইনে কল করি এবং সকাল ছয়টা ৪৯ মিনিটে দেবীগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসারের সাথে কথা বলি ডিউটি অফিসার বলেন আপনার মামলার আয়ু ঘটনাস্থলে যাচ্ছে এ বলে লাইনটি কেটে দেন। ‘আমার মামলার আয়ু ঘটনাস্থলে যাওয়ার কথা থাকলেও তিনি ঘটনাস্থলে যাননি। ‘সকালে আমার পরিবারের লোকজন সহ থানায় গিয়ে সরাসরি ওসি স্যারের সাথে কথা বললে, ওসি স্যার বলেন ‘আপনার জমি আপনাকে রক্ষা করতে হবে, আপনারা এখানে ওখানে ঘুরে বেরান, আমরা কি করবো! মামলা দিছেন নিছি তো আর কি করতে বলেন’। ক্রন্দনরত অবস্থায় রাকিবুল আরো বলেন, ‘মামলা হলেও পুলিশ আসামি ধরছে না, অপরাধীরা প্রভাবশালী হওয়ায় টাকা দিয়ে সবাইকে কিনে নিয়েছে, আমার উপর যে অন্যায় করা হয়েছে তার বিচার চাই”।

উক্ত বিষয়ে অভিযুক্ত আব্দুর রশীদ ও হেলাল গং দের মন্তব্য জানতে বিগত কয়েকদিনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও সম্ভব হয় নি।উক্ত ঘটনার বিষয়ে, সহকারী পুলিশ সুপার (দেবীগঞ্জ সার্কেল)- মোছাঃ রুনা লায়লা বলেন,’থানায় এজাহার সূত্রে মামলা হয়েছে বিষয়টি আমি দেখতেছি’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক অপরাধ তল্লাশি

Theme Customized By Shakil IT Park